ধেয়ে আসছে ভারী বৃষ্টি, ব্যাপক বর্ষণে ভাসবে এই ৬ টি জেলা!

ফের জাঁকিয়ে শীত পড়বে পশ্চিমবঙ্গে এমনটা আগে থেকেই পূর্বাভাস ছিল হাওয়া অফিসের। গত সপ্তাহে দিন তিনেক বৃষ্টির পর শনিবার থেকে ধীরে ধীরে মেঘ কাটতে শুরু করে। রবিবার মেঘ সম্পূর্ণ রূপে কেটে যাওয়ার পর সোমবার আকাশ পুরোপুরি পরিষ্কার নতুন করে তাপমাত্রার পারদ নামতে শুরু করে।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই রাজ্যের বেশিরভাগ জেলায় দেখা দিয়েছে কুয়াশার দাপট। তবে মঙ্গলবার সকাল থেকে তাপমাত্রা পারদ নামলেও এই শীতের আমেজ রাজ্যজুড়ে বহাল থাকবে মাত্র ২৪ ঘন্টা। কারণ বুধবারের পর থেকেই আবার পরিবর্তন ঘটতে চলেছে আবহাওয়ার।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ রয়েছে ৫২ থেকে ৯৯%। যে কারণে বুধবারের পর বৃহস্পতিবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতেও। বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম বীরভূম, মুর্শিদাবাদেও।

এছাড়াও, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা উত্তর-পূর্ব রাজ্য জুড়ে হালকা বজ্রপাত এবং মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়েছে। সঙ্গে কিছু জায়গায় ভারি বৃষ্টিপাতও হয়েছে। এই আবহাওয়ার কারণে, বিহার সংলগ্ন অঞ্চলের উপর পশ্চিমি ঝঞ্জা তৈরি হয়েছে।

যার ফলে বিহার এবং তেলেঙ্গানা সংলগ্ন অঞ্চলে মাঝারি একটি সাইক্লোন ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে পশ্চিমি ঝঞ্জা সরে গিয়ে উত্তর- পূর্বের রাজ্যে প্রবেশ করতে পারে। এই ঝঞ্জার কারনে, পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় অরুণাচল প্রদেশ, মিজোরাম, মণিপুর, নাগাল্যান্ড সহ ত্রিপুরা রাজ্যে এবং পশ্চিমে আসাম, মেঘালয় এবং সিকিমে ভারী বৃষ্টি সঙ্গে বজ্রপাত হতে পারে।

তারপর থেকেই উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলিতে বৃষ্টিপাতের পরিমান কমতে শুরু করবে। এবং গতকালের মতই একইরকম থাকবে রবিবারের তাপমাত্রার পারদ। এছাড়াও রাতের দিকে পশ্চিমের আসাম, সিকিমের পারদ আরও কিছুটা নামতে পারে।

এদিকে মঙ্গলবার আলিপুরের তাপমাত্রা নেমেছে ১২.২ ডিগ্রি সেলিসিয়াসে। শ্রীনিকেতনের তাপমাত্রা নেমেছে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। গত সপ্তাহের পর ফের একবার এসপ্তাহে বৃষ্টি দেখা মিলতে পারে। তবে এবার বৃষ্টির পরিমাণ গত সপ্তাহের তুলনায় অনেক কম হবে বলে আশা করা হচ্ছে। আর আবারও মেঘ কেটে যাওয়ার পর জাঁকিয়ে শীত পড়বে রাজ্যজুড়ে।

আরো পড়ুন

বিবাহিত পুরুষদের লিখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার অনুরোধ রইল!

মানুষকে নিজের প্রতি আকর্ষিত করার তেমন কোনো রুলবুক নেই। কারণ ভিন্ন মানুষ ভিন্ন ভাবনার হন। …