পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর কিছু সুইমিংপুল, যা দেখে গা সিউরে উঠছে নেটিজনদের! তুমুল ভাইরাল ভিডিও

পছন্দ করে না এমন কোন মানুষ খুঁজে পাওয়া। খুব দুষ্কর যখন সাঁতার কাটার কথা ভাবি তখন আমাদের সামনে খুব সুন্দর একটি ছবি ভেসে ওঠে। তার প্রচণ্ড গরমে আপনি দিচ্ছেন সাঁতার কাটতে ছেলে এবং এর মজা নিচ্ছেন। আর এই কারণে সাঁতার কাটার জন্য অনেকের সবথেকে পছন্দের জায়গা সুইমিংপুল। কিন্তু আপনার জন্য কখনো কখনো সাজাতে পরিণত হতে পারে তা কি কখনো ভেবে দেখেছেন। পৃথিবীতে এমন কিছু সুইমিংপুল আছে যেগুলো এতটা ভয়ঙ্কর আপনার জীবনের শেষ গোসল হতে পারে। তাই যদি আপনার কখনো সুযোগ আছে তাহলে ভুলেও এই সমস্ত সুইমিংপুলে যাবেন না

বন্ধুরা শক্ত করে বেঁধে নিন কারণ আজকে আপনারা এমন কিছু সুইমিংপুল দেখতে চাই যেগুলো দেখলে মাথা ঘুরে পড়ে যেতে পারেন ।আর সুইমিং পুলটি দেখলে আপনার গায়ের লোম শিউরে উঠবে। তাই সবকিছু জানতে চাইলে ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখুন। মানুষের পরিমাপ করার জন্য তৈরি করা হয়। পানিতে সাঁতার কাটতে থাকে নিশ্বাস পর্যন্ত নিতে পারে না ।এবং মাত্র 15 মিনিটে একজন মানুষকে অজ্ঞান করে দিতে পারে আর যদি আপনার সঠিক সময় মত না করা হয়। তাহলে আপনি এক ঘণ্টার মধ্যে মারাও যেতে পারেন ।এজন্য এই প্রতিযোগিতার আয়োজকরা এখানে সব সময় মিটিংয়ে উপস্থিত রাখেন দেওয়া আছে ।

যেখানে গিয়ে নিজেকে গরম করে নিতে পারেন তাহলে আপনার জন্য নয় কাজ দিয়ে বানানো সুইমিংপুল থেকে নিচের দিকে তাকালে কিছু সময়ের জন্য আপনার দম বন্ধ হয়ে যেতে পারে ।সুইমিং পুলটি মাটি থেকে 100 মিটার উঁচু বিল্ডিং ।এর উপর অবস্থিত ভালোমতো ফাঁকা করে দেবে দুর্বল হৃদয়ের মানুষের উপর থেকে নিচের দিকে তাকালে হার্ট অ্যাটাক করার সম্ভাবনা রয়েছে।আমেরিকায় অবস্থিত এবং অত্যান্ত প্রমাণ বলে মনে করা হয় এটাকে পৃথিবীর সবথেকে সুন্দর ছবিগুলো বলতে পারেন। কারণ প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ মানুষ আছে তাদের টাকা উড়ানোর জন্য আপনার মনে যদি হাঙ্গর এর সাথে সাঁতার কাটতে থাকে।

তাহলে আপনার সেই ইচ্ছাটা খুব সহজে পূরণ হয়ে যাবে। কেননা এখানে আপনি এমন সব স্লাইড নিতে পারবেন ।এবং অন্যান্য মাসে পরিপূর্ণ রয়েছে নাম্বার সিঙ্গাপুর এই পৃথিবীর সবথেকে উঁচু জায়গায় অবস্থিত বললেও ভুল হবে না। এই বিল্ডিং এর সাথে একত্রিত করে তৈরি করা হয়েছে এখানে গোসল করার সময় পুরো সিঙ্গাপুরের খুব ভালোভাবে দেখতে পাবেন ।অনেক সুন্দর এবং রোমাঞ্চকর কিছু মানুষ এই ভুলের উপর দাঁড়িয়ে একদিন খেতে অনেক পছন্দ করে ।কিন্তু খুবই ব্যয়বহুল হওয়ার পক্ষে আর মজা নেওয়া সম্ভব হয়ে ওঠেনা এখানে রাতের বেলা তারকাটা আরো অনেক বেশি রোমাঞ্চকর হয়ে ওঠে এবং রাতের সিঙ্গাপুরকে এখান থেকে দেখলে স্বপ্নের মত লাগে।

যদি আপনি শুনতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই সাফারি পার্কে যেতে হবে। কারণ এখানে আপনি পানিতে সাঁতার কাটতে কাটতে জমি পশু পাখিদের খুব কাছ থেকে দেখতে পাবেন। এবং আপনি যদি ভাগ্যবান হন তাহলে খুব কাছ থেকে হাতির দল কেউ দেখতে পাবেন ।কারণ সাফারি পার্কের কিছু হাতে তাদের বিপাশা মেটানোর জন্য অনেক সময় এই ফুলের পানি পান করে ।কিন্তু ভয়ঙ্কর প্রাণীগুলোর থেকে একটু সাবধান থাকতে হবে । দুনিয়ার সবথেকে গভীর এবং সব থেকে বিশুদ্ধ পানির সুইমিং পুলের পানিতে 30 ডিগ্রি সেলসিয়াস গরম করার জন্য ব্যবহার করা হয়। বড় বড় ঘর দেখতে পাবেন এবং এর ভিতর আপনি বাড়ির মত আলাদা আলাদা ঘরে যেয়ে ঘুরে বেড়াতে পারবেন।

যেকোন নতুনদের জন্য সুন্দর এখানে আপনি অনেক লম্বা যাওয়ার অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন ।ইনফিনিটি সুইমিং পুল সুইমিং পুলের থেকে অনেক আলাদা এটাকে কোম্পানির তৈরি করতে পৃথিবীর সর্বপ্রথম থেকে অর্থ আসার জন্য এটার উপরে কোন রাস্তা তৈরি করা হয়েছে ।কারণ এই বিল্ডিং এর উপর পানি ছাড়া অন্য কোন জিনিস রাখার জায়গা নেই আপনি রাতের বেলায় বিভিন্ন প্রকার আলোর ঝলক দেখতে পাবেন। রাতের বেলায় গোসল করার সময় এই লন্ডন শহর কে দেখতে সুন্দর লাগবে। এত ভয়ঙ্কর হওয়ার পরেও সারা পৃথিবী থেকে হাজার হাজার মানুষ এখানে আসার কথা কখনো ভোলেনা্।

নাম্বার ওয়ান কুইন্স বাদ দাও এমন অনেক সুইমিংপুল আছে যেখানে গিয়ে আপনি সাঁতার কাটতে পারবেন ।শুধুমাত্র একটি ছাড়া যেটাকে বলা হয় যা কিনা পাথরের মধ্যে দুটি প্রাকৃতিক সুইমিংপুল আছে ।মাঝেমধ্যে অনেক বড় এবং ভয়ঙ্কর পাথরের সঙ্গে ধাক্কা খায়। আর এইটা মাঝে মাঝে এতটাই বিপদজনক হয়ে উঠেছে সেখানে মানুষের বেঁচে ফেরা অসম্ভব হয়ে ওঠে ।সুইমিংপুল এতটাই ভয় করছে এখানে অনেক মানুষ তাদের জীবন হারিয়েছে বন্ধুরা এই ফুল গুলোর মধ্যে সবথেকে বেশি ভয়ঙ্কর মনে হয়েছে।

আরো পড়ুন

বৃদ্ধ চাচার চায়না জালে ধরা পরল হাওরের অদ্ভুত ধরনের বড় বড় মাছ। এসব মূল্যবান মাছ ভাগ্য বদলে দিল বৃদ্ধ লোকটির, তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সেই আদিম যুগ থেকেই মানুষ জেলের কাজ করে আসছে। আদিম যুগে যখন মানুষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *