বাটাবাটি বা ব্লেন্ড ছাড়াই ১৩ পদের ভর্তা, গরম ভাতে বেশ জমবে, রইল A-Z রেসিপি ভিডিও সহ প্রতিবেদন।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাঙালি মানেই ভর্তা ভাত। ভর্তা পছন্দ করে না এমন মানুষ খুব কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। হরতাল নাম শুনে অনেকের জিভে জল চলে আসে। কিন্তু অনেকেই এই স্বাদের ভর্তা বানাতে চায় না বাটাবার্টির ঝামেলা আছে বলে। কিন্তু আজকে যে ভিডিওটি দেওয়া হলো তাতে আপনি বাটাবার্টির কোনো রকম কোনো ঝামেলা ছাড়াই সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারবেন 13 পদের ভর্তা। তাহলে জেনে নেই এদেরও রকমের ভর্তা কিভাবে বানাতে হবে।

উপকরণ: শুকনা মরিচ, কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ, লবণ, সয়াবিন তেল, রসুন, ধনেপাতা, সরষের তেল, মাছ।

যেকোনো ধরনের ভর্তা বানানোর জন্য প্রথমে শুকনো মরিচ হালকা তেলে ভেজে নিতে হবে। তারপর সেই তেলে কয়েক টুকরো রসুন কুচি ভেজে নিতে হবে। আবার সেই একই তেলে পেঁয়াজ কুচি ভেজে নিতে হবে। তবে পেঁয়াজের কুচি বেশি ভালো যাবে না হালকা করে ভেজে নিতে হবে। তারপর শুকনা মরিচ ভাজা আর পেঁয়াজ একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে।

যে 13 পদের ভর্তা বানানো হবে সেই 13 রকমের সবজির নাম:বাঁধাকপি, পটল, মিষ্টি কুমড়া, ঢেঁড়স, পেঁপে, সিম, ফুলকপি, ব্রকলি, মুলা, বেগুন, ডাল, টমেটো, আলু।

ভর্তা রেসিপি: বাঁধাকপির ভর্তা বানানোর নিয়ম: বাঁধাকপি আলু সিদ্ধ করে রাখতে হবে। তারপর সিদ্ধ করে রাখা ও বাঁধাকপি কুচি কুচি করে কেটে মাখানো পেঁয়াজ মরিচ আরেকটু জলপাইয়ের আচার দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। ব্যাস হয়ে গেল বাঁধাকপির ভর্তা।

পটলের ভর্তা বানানোর নিয়ম: আগে পটল কে ভালোভাবে সেদ্ধ করে নিতে হবে। তারপর ঠান্ডা হয়ে এলে সেই পটল গুলোকে চিপে পানি বের করে নিতে হবে। এখন পটল এর সাথে কাঁচা মরিচ কাঁচা পেঁয়াজ ধনেপাতা ও সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে নিতে হবে। হয়ে গেল পটলের ভর্তা।

মিষ্টি কুমড়া ভর্তা বানানোর নিয়ম: মিষ্টি কুমড়া ভর্তা বানানোর জন্য আগে মিষ্টি কুমড়াকে টুকরো করে কেটে হালকা তেলে ভেজে নিতে হবে। আপনি চাইলে সেদ্ধ করে নিতে পারেন। সাওতা ভাজা হয়ে গেলে মিষ্টি কুমড়ার সাথে ভাজা পেঁয়াজ মরিচের মাখানো সর্ষের তেল আর রসুন কুচি ভাজা মিশিয়ে নিতে হবে। সবকিছু একসাথে মাখানো হয়ে গেলে তৈরি হয়ে গেল মিষ্টি কুমড়ার ভর্তা।

ঢেঁড়সের ভর্তা বানানোর নিয়ম: প্রথমে ঢেঁড়স গুলোকে কুচি কুচি করে কেটে সিদ্ধ করে নিতে হবে। তারপর এর সাথে পেঁয়াজ-মরিচ মাখানো আর সর্ষের তেল আর লবণ একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে।

পেঁপে ভর্তা বানানোর নিয়ম: এজন্য প্রথমে পেঁপের গুলোকে ভাল করে সিদ্ধ করে নিতে হবে। তারপরে সাথে ভাজা পেঁয়াজ মরিচ আর লবণ আর একটু সরিষার তেল মিশিয়ে ভালোভাবে কচলে নিতে হবে। হয়ে গেল পেঁপের ভর্তা।

সিম ভর্তা বানানোর নিয়ম: সিমের ভর্তা বানানোর জন্য প্রতিনিধিমূলক হবে সেদ্ধ করে নিতে হবে। তারপর একসাথে ভেজে রাখা পেঁয়াজ আর মরিচ সরিষার তেল ধনিয়া পাতা লবণ একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে।

ফুলকপি ভর্তা বানানোর নিয়ম: এজন্য প্রথমে ফুলকপির ভালো হবে হালকা হবে সেদ্ধ করে নিতে হবে। তারপরের সাথে পেঁয়াজ মরিচ ধনিয়া পাতা লবণ সরিষার তেল একসাথে মিশিয়ে চটকিয়ে নিতে হবে।

ব্রকলি ভর্তা বানানোর নিয়ম: এজন্য প্রথমে আপনাকে ব্রকলি ভালোভাবে সিদ্ধ করতে হবে। তারপর একই নিয়মে পেঁয়াজ-মরিচ সরষের তেল ধনিয়া পাতা লবণ মিশিয়ে নিতে হবে।

এভাবে করে একের পর এক প্রত্যেকটি সবজি দিয়ে আপনি ভর্তা বানিয়ে নিতে পারবেন। এখানে আটটি ভর্তা বানানোর রেসিপি দেয়া আছে বাকিগুলো দেখতে হলে অবশ্যই আপনাকে ভিডিওতে যেতে হবে। এই ভিডিওটি সবগুলো ভর্তা বানানোর নিয়ম খুব সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে দেওয়া আছে আপনি সহজেই চাইলে এটাকে বর পানিও যে কাউকে ইমপ্রেস করতে পারেন। আপনি যদি হুটহাট করে অনেকগুলো ভর্তা খেতে বানাতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার ভিডিওটি দেখা উচিত। খিচুড়ির সাথে ভর্তা গুলো ভালো জমবে। ভিডিওটি দেখতে চাইলে নিচের লিংকে গিয়ে দেখে আসতে পারেন আপনার সুবিধার জন্য নিচের লিংক দেওয়া আছে।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

আরো পড়ুন

বাই সা,ইকে,লের রিং দিয়ে দারুন কায়দা করে বাননো হল ব,ন্দুক, সেই ব,ন্দুক দিয়ে গুলি করে শিfকার করল বড় মাছ তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান প্রযু,ক্তি আমাদের দিনকে খুব সহজ করে তুলে দিয়েছে। কিন্তু এই প্র,যুক্তি একদিনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.