রসালো পাকা আমের আইসক্রিম শীতল করবে আপনাকে, খুব সহজে তৈরি করুন দারুন স্বাদের আমের আইসক্রিম!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজকের পছন্দ করে না এরকম লোক খুঁজে পাওয়া মুশকিল। বিশেষ করে গরমের সিজনে আইসক্রিমের চাহিদাটা বেশি বৃদ্ধি পায়। বর্তমানে দোকান গুলোতে অনেক ধরনের আইসক্রিম পাওয়া যায়। আলাদা আলাদা ফ্লেভারের আইসক্রিম আলাদা আলাদা স্বদের হয়ে থাকে। বেশিরভাগ আইসক্রিম বিভিন্ন ফলের ফ্লেভার এর হয়ে থাকে। বর্তমানে ইউটিউবে বিভিন্ন ধরনের আইসক্রিম তৈরির রেসিপি সচরাচর পাওয়া যায়। অনেকে বাহিরের আইসক্রিম খেতে পছন্দ করেনা । তারা বিভিন্ন আইসক্রিম তৈরি করার রেসিপি ইউটিউব থেকে দেখে বাসায় তৈরি করে খাওয়ার চেষ্টা করে ।

আজকের এই ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে বাসায় বসে খুব সহজে এবং অল্প খরচে আমের আইসক্রিম তৈরি করা যায়। বর্তমানে আমের সিজন চলছে। আমাদের দেশের আমের সিজনে প্রায় সকল অঞ্চলেই আম পাওয়া যায়। এটি খুব সহজলভ্য একটি ফল। আমরা যারা আম খেতে ভালবাসি তারা আম দিয়ে তৈরি বিভিন্ন রেসিপি গুলোও খেতে ভালোবাসে। আম দিয়ে বিভিন্ন ধরনের রেসিপি তৈরি করা যায়। এর মধ্যে একটি হচ্ছে আইসক্রিম। নিচে আমের আইসক্রিম তৈরি করার রেসিপিটির উপকরণসহ বর্ণনা দেওয়া আছে।

উপকরণ সমূহ:, তরল দুধ – ২ কাপ,চিনি – আধা কাপ, কর্ণফ্লাওয়ার – ২ টেবিল চামচ, ম্যাংগো ইমালশন – ১ চা চামচ, ম্যাংগো পিউরী – ১/২ কাপ, বরফ ঠান্ডা হুইপড ক্রীম – ১ কাপ, লেমন ইয়োলো ফুড কালার – সামান্য, ম্যাংগো কিউব – ১/২ কাপ প্রথমে একটি পাত্রে দুধের পরিমান গরুর দাম নিতে হবে । এরমধ্যে আধা কাপ চিনে নিতে হবে। ভালো করে মিক্স করতে হবে। এবং 2 টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার যুক্ত করতে হবে। তারপর মিশ্রনটিকে ভালো করে মিক্স করে চুলায় বসিয়ে নাড়তে হবে।

যতক্ষণ না পর্যন্ত একটু ঘন হয় ততক্ষণ পর্যন্ত এই মিশ্রণটি কে চুলায় বসিয়ে রাখতে হবে। এবং তা পরবর্তীতে চুলা থেকে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় ঠান্ডা করতে হবে। তারপরে এর মধ্যে এক চামচ ম্যাংগো ইমালশন এবং আমের কিউরি আধা চামচ যুক্ত করে ভালো করে চামচ দিয়ে নেড়ে মিশাতে হবে।এবং তা একটি পলিথিন দিয়ে ঢেকে নরমাল ফ্রিজে আধা ঘন্টার মত ফ্রীজিং করতে হবে। তারপর আরেকটি পাত্রে বরফ ঠান্ডা হুইপড ক্রিম 1 কাপ, লেমন ইয়েলো কালার ব্লেন্ডার দিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিতে হবে। যতক্ষণ না পর্যন্ত মোটামুটি একটু ঘন হয় ততক্ষণ ব্লেন্ড করে নিতে হবে।

তারপর পূর্বে তৈরি করা মিশ্রণটি ফ্রিজ থেকে বের করে পরের ব্লেন্ড করা মিশ্রণটির সাথে যুক্ত করে আরো অনেকক্ষণ ব্লেন্ড করে নিতে হবে। তারপর আধা কাপ ম্যাংগো কিউব দিয়ে চামচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে দিতে হবে। ম্যাংগো কিউবগুলো ব্লেন্ড করার পরে দিতে হবে। কেন ব্লেন্ড করার পূর্বে যদি দেওয়া হয় তাহলে আমের কিউবগুলোও ব্লেন্ড হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে আমের কিউবগুলো আস্তা রাখতে ব্লেন্ড করার পরেই কিউব গুলো দিতে হবে। এবং পরে তা পলিথিন দিয়ে ঢেকে ডিপ ফ্রিজে 10 থেকে 12 ঘন্টা ফ্রিজিংকরতে হবে। এবং তা পরবর্তী সময়ে বের করে পরিবেশন করতে পারেন।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ

আরো পড়ুন

এই পদ্ধতিতে সবচেয়ে সেরা স্বাদে রান্না করুন চিকেন কড়াই, এই যাদুকরি চিকেন একবার খেলে সারা জীবন মনে থাকবে!

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুরগির মাংস দিয়ে অনেক ধরনের খাবারের আইটেম হয়ে থাকে। যারা মুরগির মাংস খেতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.