শুকোনো খালের মধ্যে হাটতে গিয়ে মুক্তো ভর্তি ঝিনুক পেল যুবতী, একেই বলে কপালের নাম গোপাল, নেট দুনিয়ায় তুমুল ভাইরাল সেই ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুক্তা খুবই মূল্যবান একটি রত্ন। মুক্তা এক ধরনের শম্বুক জাতীয় প্রাণী ঝিনুকের মাধ্যমে তৈরী হয়। এটি দেখতে ছোট এবং প্রায়ই সাদা রঙের হয়ে থাকে। তবে কখনো কখনো পাণ্ডুর বা ফ্যাকাশে রঙ-সহ কালো রঙেরও হতে পারে। সাধারণত মুক্তা দেখতে গোলাকৃতি ধরনের হয়। এছাড়া, অর্ধ-গোলাকার, ডিম্বাকৃতি কিংবা অন্য যে-কোন বিভিন্ন আকৃতিরও হতে পারে। অলঙ্কার জগতে এর অসম্ভব জনপ্রিয়তা ও সুনাম রয়েছে। জুন মাসে জন্মগ্রহণকারী জাতকগণ জন্মপাথররূপে মুক্তা ধারণ করে থাকেন।

আজকের এই ভিডিওটিতে একটি মেয়ের মুক্তা সংগ্রহ এর চিত্র ধারণ করা হয়েছে। যা নেট দুনিয়ায় প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে মেয়েটি একটি শুকনো খালের মধ্যে দিয়ে হাঁটতে যায়। এবং সেখানে এসে বড় বড় কয়েকটি ঝিনুক দেখতে পায়। এবং সে জিনিসগুলোকে সংগ্রহ করে বাড়িতে নিয়ে যায় এবং সে এগুলোকে কাটার পর অবাক হয়ে যায়। সে গুলোকে কেটে দেখতে পাই এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে মুক্তা রয়েছে। মুক্তা গুলো অনেক দামি হওয়ায় মুহূর্তের মধ্যেই তার জীবন বদলে যায়।

পৃথিবীতে মাঝেমধ্যে এমন ঘটনা ঘটেছে যে মানুষের জীবন মুহূর্তের মধ্যেই বদলে যায়। ঠিক তেমনি আজকের ভিডিওটিতে এই মেয়েটি কয়েকটি ঝিনুক সংগ্রহের মাধ্যমে অতি মূল্যবান মুক্তার সন্ধান পায়। মেয়েটির ঝিনুক গুলো সংগ্রহ করে একটি ঝুড়ির মধ্যে করে বাড়িতে নিয়ে যায়। এবং সেই একটি একটি করে কাঁপছিল আর এর ভিতর থেকে প্রচুর পরিমাণে মুক্ত একটি একটি করে বের করে আনে। এরকম মুক্তা সংগ্রহের দৃশ্য আমি এর পূর্বে দেখিনি।

যা দিয়ে সে আর্থিকভাবে লাভবান হয়। মুক্তাকে ঝিনুক খুবই পরম যত্নে আগলে রাখে। একজন মা যেমন তার বাচ্চাকে আগলে রাখে ঠিক তেমনি একটি ঝিনুক তার মুক্তাকে তার ভিতরে আগলে রাখে।ঝিনুকের খোলকের অভ্যন্তরে তৈরী মুক্তোয় ক্যালসিয়াম কার্বোনেট যৌগযোগে মুক্তা তৈরী হয় যা স্তরের কেন্দ্রে সংরক্ষিত থাকে। আদর্শ মুক্তা গোলাকার ও মসৃণ প্রকৃতির হয়। ব্যারোক পার্লজাতীয় মুক্তা বিভিন্ন আকার ও আকৃতির হয়ে থাকে।

চমকপ্রদ, মনোলোভা, সুন্দর ও উচ্চ মূল্যমানের মুক্তা সৌন্দর্যপিপাসুদের কাছে শত শত বছর ধরে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এ কারণেই মুক্তা একসময় অলঙ্কারে স্থান করে নেয়। তন্মধ্যে বেশ কিছু মুক্তা অত্যন্ত দুর্লভ, চমৎকার, প্রশংসনীয় এবং অতীব মূল্যমানের অধিকারী। মুক্তা সংগ্রহের উপর ভিত্তি করে এটি দু’ধরনের হতে পারে – প্রাকৃতিক মুক্তা যা সমুদ্র বা নদী থেকে সংগৃহীত, কৃত্রিম মুক্তা।, চাষের মুক্তা, মুক্তা বর্তমানে চাষ করা হয়। চাষের মধ্যে বর্তমানে মুক্তা চাষ খুবি লাভজনক একটি চাষ।

বর্তমানে আমাদের দেশে বিভিন্ন স্থানে মুক্তা চাষ করে অনেকে লাভবান হয়েছে।মুক্তা চাষে কয়েকটি সুবিধা রয়েছে যেমন যে পুকুরে মুক্তা চাষ করা হয় সে পুকুরে মুক্তার পাশাপাশি মাছ চাষ করা হয়। এবং মুক্তা চাষে ঝিনুক এর জন্য আলাদা কোন খাবারের প্রয়োজন পড়ে না। যার কারণে মুক্তা চাষ খুবই লাভজনক একটি চাষ। মেয়েটি কিভাবে ঝিনুক সংগ্রহ করে এবং এর মধ্য হতে মুক্তা গুলো আলাদা করে তা দেখতে ভিডিওটি দেখতে পারেন।

আরো পড়ুন

ডোবার মধ্যে হাটতে গিয়ে লংকা কান্ড, ঘাসের আবরন টান দিতেই বেরিয়ে আসল মাছের ঝাক, তুমুল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: গ্রাম্য পরিবেশে মাছ ধরতে কার না ভালো লাগে। যদি হাটতে গিয়ে মাছ পাওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *