সামান্য সুজি আর দুধ দিয়ে বানিয়ে নিন স্পেসাল তুলতুলে নরম মজাদার মিষ্টি, স্বাদ হবে হেব্বি ভিডিও সহ বৌদির হতে রেসিপি!!

নিজস্ব প্রতিবেদন: মিষ্টি পাগল মানুষদের জন্য আজকের এই রেসিপি। আপনি কি মিষ্টি খেতে খুব পছন্দ করেন কিন্তু বানানো কে ঝামেলা মনে করছেন আর তাই বাজার থেকে কিনে খাচ্ছেন অস্বাস্থ্যকর মিষ্টি। তাহলে এই ভিডিওটি আপনার জন্য। এই ভিডিওটা গ্রামের একজন বৌদি তার নিজের হাতে মিষ্টি বানানোর পদ্ধতি দেখিয়েছেন।

এখানে তিনি সুজি এবং দুধ দিয়ে খুব সহজেই মিষ্টি বানিয়ে দেখিয়েছে যা খেতে খুবই নরম তুলতুলে এবং সুস্বাদু। মিষ্টি বানানোর জন্য আপনাকে খুব বেশি উপকরণ নিতে হবে না। সামান্য কিছু উপকরণ দিয়ে বাসায় বানিয়ে ফেলতে পারবেন এই মিষ্টি। এটি এতো সুস্বাদু যে যে কারো যদি জিভে জল চলে আসবে। চলুন তাহলে দেখে নেয়া যাক এই মিষ্টি বানানোর জন্য আপনার কি কি উপকরণ দরকার।

উপকরণ:-দুধ-সুজি-গুঁড়ো দুধ-লবণ-চিনি-তেল-ঘি-এলাচ-এই সামান্য কিছু উপকরণ দিয়ে আপনি খুব সহজেই মিষ্টি বানাতে পারবে। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক এবার কিভাবে এটি বানাবেন। রেসিপিটি এবার আমি শেয়ার করছি।

একটি বানানোর জন্য প্রথমে আপনাকে একটি কড়াইতে দুধ গরম করতে হবে। আর একটা কড়াইতে সুজি গুলো ঘি দিয়ে ভেজে নিতে হবে। অবশ্যই অল্প আঁচে ভাজতে হবে যাতে সেটি পুড়ে না যায়। সুজির কালার যখন হালকা বাদামি রঙের হয়ে যাবে তখন সেটাকে নামিয়ে নিতে হবে।

এরপর সেটির উপর অল্প অল্প করে দুধ দিয়ে সুজি গুলোকে মেখে নিতে হবে। একেবারে সব দুধ দেয়া যাবে না অল্প অল্প করে দিয়ে মাখতে হবে। যখন এটি মাখা হয়ে যাবে তখন এর সাথে গুঁড়ো দুধ মিশিয়ে এটিকে আরো ভালোভাবে মেখে নিতে হবে।

এরপর হাত দিয়ে টিকে মিষ্টির আকারে বানিয়ে নিতে হবে। এরপর অন্য আরেকটি কড়াইতে চিনি এবং পানি দিয়ে চিনির সিরা তৈরি করতে হবে। তারপর একটি কড়াইতে তেল গরম করতে হবে মিষ্টি গুলোকে ভাজার জন্য। তেল বেশি গরম করা যাবে না অল্প গরম হওয়ার পরে মিষ্টিগুলোকে ভেজে নিতে হবে আস্তে আস্তে।

বেশি গরম তেলে দিলে মিষ্টিগুলো পুড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ভাজা শেষ হলে এগুলো কে চিনির সিরায় ঢেলে দিতে হবে। ব্যস তৈরি হয়ে গেল আমাদের আজকের সুস্বাদু মিষ্টি। বৌদির এই মিষ্টি তৈরি করার রেসিপি ইউটিউবে প্রচুর পরিমাণ ভাইরাল হয়েছে। আপনিও চাইলে ভিডিওটি দেখে বাসায় তৈরি করে নিতে পারেন সুস্বাদু মিষ্টি। এটি দেখতে যেমন সুস্বাদু খেতেও তেমন নরম তুলতুলে এবং মজার।

আরো পড়ুন

এই পদ্ধতিতে সারা বছর জুড়ে সংরক্ষণ করুন টাটকা আম, লাগবে না কোনা,ক্যামিকেল, রোদে শুকানো, রইল A-Z পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আম একটি মৌসুমী ও ফল। মৌসুম ছাড়া আম পাওয়া যায় না। আম সারা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.