হাতির বাচ্চা খেতে এসে বিপদে কুমির! হাতির সমস্ত শক্তি দিয়ে কুমিরের পেট থেকে বের করে আনল তার বাচ্ছাকে, সন্তানের প্রতি মায়ের এমন ভালবাসা দেখে প্রসাংসায় ভাসাল নেটিজনরা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:পৃথিবীতে এমন কিছু প্রাণী আছে যারা দেখতে অনেক সুন্দর হলেও তারা কিন্তু আসলে অনেক রাগী এবং ভয়ঙ্কর হয়। বন্ধুরা পশুরা কখনো এক রিসিভ হয়ে যায় সেটা কেউ বলতে পারে না। বিশেষ করে বন্য পশুদের আচার-আচরণে ধারণা করা খুবই কষ্টকর।

এদের এই আক্রমনাত্মক ব্যবহার আমাদের অনেক ক্ষতি করে দিতে পারে।মধ্য ইউরোপ আমেরিকা এবং এশিয়ার বিভিন্ন অংশে দেখা যায় এদের ওজন প্রায় 75 থেকে 100 এর মধ্যে হয়ে থাকে বন্য শুকর এর বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এদের মনে করা হয়। এই বন্য প্রাণীদের সঙ্গে ঝামেলা করা এবং নিজেকে রক্ষা করার জন্য প্রকাশিত হয়েছে, এই তিক্ততা আত্মরক্ষার জন্যই ব্যবহার করে থাকে।

এতে শরীরের চামড়া খুবই শক্ত এবং সামান্য কিছু লোম থাকে যেগুলো খুবই শক্ত লম্বা মুখের সামনের অংশ কিছুটা চ্যাপ্টার ভিতরে থাকে।নরম হাড়ে একটি অংশ তাকে শক্ত করে রাখে এই ছবির সাহায্যে মাটি খুঁড়তে পারে এবং ভারী ভারী পাথর ছুড়ে ফেলতে পারে এদের ঘ্রাণশক্তি প্রবল।

এরা মাটির ভিতরে থাকা শিকারের বন্ধু পেয়ে যায় এবং মাটি খুঁড়ে তাদেরকে বের করে স্বীকার করে অভিজ্ঞ শিক্ষার্থীদের মধ্যে বন্য শূকর স্বীকার করা খুবই বিপদজনক স্বীকার করা হয় লুকিয়ে যদি কোনো কারণবশত আপনি স্বীকার করতে ব্যর্থ হন তাহলে এই বন্য শূকর তাতে তাদের সাহায্যে আপনার শরীর ক্ষত-বিক্ষত করে দেবে।

এই শুয়োরের প্রচন্ড আক্রমনাত্মক স্বভাবের জন্য এদেরকে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ঙ্কর এবং রাগি প্রাণীদের মধ্যে গণনা করা হয়। এই বন্য শূকর একবার রেগে গেলে সিংহ কিংবা চিতা বাঘের মতো ভয়ঙ্কর প্রাণী কেউ ছাড়ে না। সাপের মধ্যে সব থেকে মারাত্মক প্রজাতির সাপ ব্ল্যাক মাম্বা আফ্রিকার এই বিষাক্ত সাপ।

পৃথিবীর সবথেকে বিষাক্ত 10 টি সাপ এর মধ্যে একটি আকরিকের প্রতিবছর প্রায় 30 হাজার মানুষ মারা যায়।অনেক কারণেই বিশেষভাবে পরিচিত অন্যান্য সাপের তুলনায় অনেক দ্রুত ঘন্টায় 20 কিলোমিটার বেগে ছুটতে পারে। এই সাপের সবথেকে ভয়ংকর সত্য হলো একবার তো বল মেরে ক্ষান্ত হয় না।

অর্থাৎ সম্ভাবনা থাকলে এইসব কিছু সেকেন্ডের মধ্যেই 12 থেকে 15 বছর মেয়েদের শরীরে 400 মিলিগ্রাম পর্যন্ত পৃষ্ঠায় আপনি কি জানেন, 1 মিলিগ্রাম একজন মানুষকে মারার জন্য যথেষ্ট প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গেই চোখের সামনে সবকিছু অন্ধকার হয়ে যায়।

এবং সঠিক চিকিৎসা না হলে 15 মিনিটের মধ্যেই মানুষের মৃত্যু হতে পারে তাই কখনো এই সাপের সামনে পড়লে দ্রুত সম্ভব সেখান থেকে দৌড়ে পালাবে না। ভাল্লুক প্রজাতির সবথেকে ছোট এবং বিরল প্রজাতির ভাল্লুক তাদের মধু খুবই পছন্দের খাবার। এই জন্য এখানে বলা হয়, কিন্তু এই মিষ্টি নাম আপনাকে বোকা বানিয়ে ফেলতে পারে।

এদের নাম যতটা মিষ্টি আমেরিকান কাল ভালুকের প্রায় অর্ধেক যখনই ভাল্লুক তার সম্ভবত সূত্র কে চিনে নেয় তখন তার ওপরে অপ্রত্যাশিত ভাবে আক্রমণ করে ফেলে। এবং হাত লম্বা হয় এদের ক্ষমতা আন্দাজ করতে পারবেন। এখান থেকেই সে একটা মোটা ট্রাম্প ছিড়ে ফেলতে পারে এছাড়াও অন্যান্য প্রাণীদের সঙ্গে দ্বন্দ্ব করার জন্য পরিচিত মতই এদের ছোট এবং কাঁদতে থাকে।

বড় স্তন্যপায়ী প্রাণীর তুলনায় অনেক বেশি এবং মানুষের কাছ থেকে কিছু চুরি করার জন্য এদের ব্যবহার করা হয়।ক্ষতির আশঙ্কা পেলে এর আগে চাই এবং জোরে জোরে চিৎকার করতে থাকে। শিকার করার জন্য ঈদের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো শিকার করার সময়। এরা ধীরেসুস্থে শিকারের দিকে অগ্রসর হয় তাতে সিঙ্গার বুঝতে না পারে।

যে তার ওপর আক্রমণ হতে চলেছে এমন এরা আশঙ্কা স্বীকার এর উপর আক্রমন করে দেয় ওয়াটার ক্রোকোডাইল লবণাক্ত পানির কুমির পানি, এবং তাদের মধ্যে অন্যতম অমুসলিমরা জন্যই মনে হয়। এদের সামনে আছে কোন প্রাণীকে ফেলতে পারে যার মধ্যে ক্যাঙ্গারু হরিণ আয়না গৃহপালিত পশু মানুষ এমন কেউ খেয়ে ফেলতে পারে এই জন্যই খাইছে।

আরো পড়ুন

বৃদ্ধ চাচার চায়না জালে ধরা পরল হাওরের অদ্ভুত ধরনের বড় বড় মাছ। এসব মূল্যবান মাছ ভাগ্য বদলে দিল বৃদ্ধ লোকটির, তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সেই আদিম যুগ থেকেই মানুষ জেলের কাজ করে আসছে। আদিম যুগে যখন মানুষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *