৬০ বছর বিনা বেতনে মসজিদের ইমামতি করলেন বৃদ্ধ নুরুল আমিন

জীবনের দীর্ঘ ষাট বছর মসজিদের ইমাম ও খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মাওলানা নুরুল আমিন। অদ্ভুত ব্যাপার হলো, বিনিময়ে নেননি কোন টাকা কড়ি। তবে বার্ধক্যজনিত কারণে গতকাল শুক্রবার শেষ জুমার নামাজ পড়িযে অবসরে যান তিনি। তিনি এতকাল ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মুখুরিয়া গ্রামে প্রাচীন একটি মসজিদের ইমাম হিসেবে ছিলেন।

এরপর স্বেচ্ছায় দায়িত্বের ইতি টানেন। এ সময় মসজিদের মুসল্লি ও এলাকাবাসী তাকে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতে গিয়ে অশ্রসিক্ত হয়ে পড়েন।মাওলানা নুরুল ইসলামের বাড়ি উপজেলার কলতবাড়ী গ্রামে। তিনি জানান, ১৯৬০ সাল থেকে ওই মসজিদে বিনা বেতনে ইমামতি ও খতিবের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছেন। ইহকাল ও পরকালের শান্তি কামনায় তিনি সকলের দোয়া চেয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর মসজিদ কমিটির বিদায় অনুষ্ঠান করেন।

এ সময় মসজিদে আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। শ্রদ্ধা-ভালবাসা ও সম্মান জানিয়ে তাকে বিদায় দেন মুসল্লি ও এলাকাবাসী। মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল বারী মাস্টারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা খান অপুর সঞ্চালনার বিদায়ী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন- গৌরীপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী, গোলাম সামদানী খান সুমন, মো. আব্দুল খালেক, মুখুরিয়া সিদ্দিকিয়া মদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা আল আমিন, মুফতি রুহুল আমিন প্রমুখ।

তিনি জানান, ১৯৬০ সাল থেকে ওই মসজিদে বিনা বেতনে ইমামতি ও খতিবের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছেন। ইহকাল ও পরকালের শান্তি কামনায় তিনি সকলের দোয়া চেয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর মসজিদ কমিটির বিদায় অনুষ্ঠান করেন।

আরো পড়ুন

এক ধাক্কায় অনেকটাই কমল সোনার দাম,বাজারে হটাৎ প্রচুর ক্রেতা, রইলো বাজারে আজকের দাম!

সোনা বর্তমানে সর্বাধিক চাহিদা সম্পন্ন ধাতু। সোনার দামের উত্থান পতনের দিকে সাধারণ মধ্যবিত্তদের সবসময় নজর …